Main Menu

আশুলিয়ায় ইউপি চেয়ারম্যানসহ চার সাংবাদিকের নামে মিথ্যা

আশুলিয়া ইউনিয়নের জনপ্রতি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সাহাব উদ্দিন মাদবর ও আশুলিয়ার যমুনা নিউজের সাভার প্রতিনিধি সাদ্দাম হোসেন, বাংলা টিভির আলমগীর হোসেন নীরব, ওয়ানলাইভ২৪,কম নিজস্ব প্রতিনিধি এন ইসলাম নিপুর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র মূলক মিথ্যা মামলা করেছেন কথিত যুবলীগ নেতা রাজু আহমেদ।

সাম্প্রতিক, মাননীয় দূর্যোগ প্রতিমন্ত্রী ড.এনামুর রহমান (এমপি) কে কটুক্তি করে জাতীয় একাদশ নির্বাচন কে প্রশ্নবিদ্ধ করে এমন কিছু অডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

এনিয়ে স্থানীয় নেতাকর্মীরা কথিত যুবলীগ নেতার উপর খুদ্ধ হয়ে উঠে। পরে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ সাহাবুদ্দিন মাদবর গত ২০জন আশুলিয়া থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা করেন। মামলা নং ৫০।

এরই প্রেক্ষিতে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে রাজুর বিরুদ্ধে সংবাদ প্রচার হলে তার মধ্যে কিছু সাংবাদিক টার্গেট করে। তাদের ভয় ভীতি প্রদর্শন করে আসছিল কথিত এই যুবলীগ নেতা। পরে গত ১০ আগস্ট সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতে আশুলিয়া জনপ্রিয় চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ সাহাবুদ্দিন মাদবর সহ চার জন সাংবাদিক এর নামে মিথ্যা মামলা দায়ের করেন। কথিত যুবলীগ নেতা রাজু আহমেদ।

আশুলিয়ায় মিথ্যা নাটক সাজিয়ে জনপ্রিয় ইউপি চেয়ারম্যান শাহাব উদ্দিন মাদবর কে মামলাম ফাঁসানোর চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে কথিত যুবলীগ নেতা রাজু আহমেদের বিরুদ্ধে।

ঢাকা জেলা উত্তর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও চেয়ারম্যান শাহাব উদ্দিন , কথিত যুবলীগ নেতা রাজু আহমেদের কাছ থেকে টাকা ধার নিয়ে দিচ্ছে না ও রাজু আহমেদের কাছে চাঁদা দাবি করছে এমন বানোয়াট কাহিনী সাজিয়ে শাহাব উদ্দিন চেয়ারম্যানসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করেছেন কথিত ওই যুবলীগ নেতা রাজু আহমেদ।

আশুলিয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এমন মিথ্যার মামলার প্রতিবাদে ফুঁসে উঠেছেন পুরো আশুলিয়া ইউনিয়ন বাসী। আশুলিয়া ইউনিয়ন ৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, শাহাব উদ্দিন চেয়ারম্যানের রাজনৈতিক ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করতে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে কথিত নেতা রাজু আহমেদ এ কাজগুলো করে যাচ্ছেন।

আশুলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের অন্যতম সদস্য নজরুল ইসলাম বলেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য কে নিয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করায় রাজু আহমেদের বিরুদ্ধে শাহাবউদ্দিন মাদবর বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় একটি মামলা করেন। সেই মামলা থেকে বাঁচতে এই ধরনের নাটক সাজাচ্ছেন কথিত যুবলীগ নেতা রাজু আহমেদ। আমার এই কথিত নেতাকে দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি।

আশুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য হোসেন আলী মাস্টার বলেন, মাননীয় ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমানকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজকারী কথিত যুবলীগ নেতা রাজু আহমেদ কে অবিলম্বে আইনের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি। একইসাথে আশুলিয়া ইউনিয়নের জনগণের হৃদয়ের স্পন্দন চেয়ারম্যান শাহাবউদ্দিন মাদবরের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি ।

উল্লেখ্য, স্থানীয় সংসদ সদস্য ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রীকে সাংবাদিকদের সামনে রাজুর ব্যক্তিগত অফিসে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করায় আশুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহাবউদ্দিন  মাদবর বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় কথিত যুবলীগ নেতা রাজু আহমেদের বিরুদ্ধে গত (২০ জুন) রাতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা করে।

সেই মামলা থেকে বাঁচতে চাঁদাবাজি ও টাকা ধার নেওয়ার মিথ্যা নাটক সাজিয়ে জনপ্রিয় ইউপি চেয়ারম্যান শাহাব উদ্দিন মাদবরকে মামলা দিয়ে ফাঁসানোর চেষ্টা করছেন কথিত ওই যুবলীগ নেতা রাজু আহমেদ।






error: কপি করা নিষেধ !!
%d bloggers like this: